মোহাম্মদ ইদ্রিছ,পদুয়া: চট্টগ্রাম জেলার রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়ার দ্বারিকোপ বাটানা পাহাড় গাজী মার্কেট এলাকায় গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস দিয়ে পূর্ণিমাদে (১৮) নামে এক অটোরিক্সা চালকের স্ত্রীর আত্মহত্যা করেছে।
সোমবার (৩১ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের দ্বারিকোপ বাটানা পাহাড় গাজী মার্কেট এলাকায় নিজ বাড়িতে নিজ কক্ষে দরজা বন্ধ করে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস দেয় সে। মৃত গৃহবধুর ৬ মাসের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। মৃত্যুর আগে পার্শ্ববর্তী প্রতিবেশি তিশিতা (১২) নামে এক কিশোরীকে গৃহবধুর ৬ মাসের কন্যা সন্তান তার কোলে দিয়ে চা পান করানোর জন্য বলেন, কিছু সময় পর তিশিতা মৃত গৃহবধুর কন্যা সন্তানকে দিতে আসলে দরজা বন্ধ দেখতে পায়,পরে তিশিতা দরজা ধাক্কা দিয়ে কোনোভাবে দরজা খোলে গৃহবধুকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পাশ্ববর্তী লোকজনকে খবর দেয়, প্রতিবেশীরা প্রশাসনকে খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
নিহত পূর্ণিমাদে অটোরিক্সা চালক হৃদয় দে’র স্ত্রীর। তার একজন ৬ মাসের কন্যা সন্তান রয়েছে।
এ বিষয়ে রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মিল্কি বলেন, আমরা মরদেহ ময়নাতদন্তরে জন্য মর্গে পাঠিয়েছি, রিপোর্ট আসার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করব। প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা করছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।