রাজস্থলী প্রতিনিধিঃ রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আদোমং মারমাকে নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে পরিষদের সদস্য -সদস্যাগণের উদ্যোগে জরুরি প্রতিবাদ সভা বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকাল ৪ টার দিকে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তরা বলেন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ১৪৯৩ পরিবারের জন্য মাথাপিছু ১০ কেজি হারে ভিজিএফ চাল বিতরণের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বরাদ্দকৃত চাউল গুলো বিতরণের জন্য তালিকা তৈরি করার লক্ষে পরিষদের ৯টি ওয়ার্ডের মেম্বার ও মহিলা মেম্বারের সমন্বয়ে বন্টন করা হয়। ওয়ার্ড ভিত্তিক তালিকা অনুযায়ী দুই দিনে ভিজিএফ চাল বিতরণের জন্য সিদ্ধান্ত নেয়। তারে পেক্ষিতে গত ২৭ শে এপ্রিল তিন টি ওয়ার্ডে ও ২৮শে এপ্রিল ৬টি ওয়ার্ডে তালিকা ভুক্ত পরিবারের মাঝে চাউল গুলো বিতরণ করা হয়েছে বলে সভায় ইউপি চেয়ারম্যান আদোমং মারমা বলেন। তিনি করে বলেন, গত দুই দিনের বিতরণ করে চাউলের মাষ্টারোল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার নিকট জমা দেওয়া হয়েছে বলে জানান। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে আমাদের এলাকার কতিপয় বেক্তিরা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, ভিত্তিহীন, এবং অবাস্তব অভিযোগ এনে মানহানীকর অবস্থা সৃষ্টি করে অপ-প্রচার চালাচ্ছে। নির্বাচন সংক্রান্ত কিছু বিদ্রোহী লোকজন জড়িত থেকে এসব কর্মকান্ড- করছে। তারা আমার ভাবমূর্তী বিনষ্ট করতে বাজারে বিভিন্ন স্থানে গুরুপিং করে অপতৎপরতা চালাচ্ছে। সভায় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্যা ছালমা আক্তার, এসাইসিং মারমা, বাপ্পী দেব, ইউপি সদস্য এমদাদুল হক মিলন, কামাল হোসেন, আবদুল কাদের হাওলাদার,থোয়াইসুইমং মারমা, শিমুল দাস,ক্যাসিংহ্লা মারমা,ইখ্যাইমং মারমা প্রমুখ।
এদিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবু হেলালের সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদে ১৪৯৩ পরিবারের মাঝে ১০কেজি হারে ভিজিএফ চাল বিতরণের জন্য সমপরিমাণ চাউল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তার অনুকূলে ১৪৯৩টি পরিবারের মাঝে চাউল বিতরণের মাষ্টারোল অফিসে জমা দিয়েছেন বাঙ্গালহালিয়া চেয়ারম্যান আদোমং মারমা।