পূর্বের হামলার ঘটনায় মামলা করায় জাহেদুল ইসলাম আরিফ নামের এক সাংবাদিকের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা ইউনিয়নের সৌদিয়া প্রজেক্ট গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

জাহেদুল ইসলাম আরিফ (২২) দৈনিক আজকের দর্পণ ও চট্টগ্রামভিত্তিক অনলাইন সংবাদমাধ্যম মহানগর নিউজের রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত। মামলার প্রধান আসামি মো. রাশেদ (৩৫) পোমরা ইউনিয়নের রোসাইপাড়া এলাকার হাফিজুর রহমানের ছেলে। 

জাহেদুল ইসলাম জানান, রাশেদ ও তাঁর সহযোগীরা এলাকার বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে চাঁদাবাজি করে এমন তথ্য পেয়ে তিনি সংবাদ সংগ্রহে মাঠে নামেন। এ কারণে, তাঁর ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৫ এপ্রিল বিকেলে পোমরা বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে তাকে মারধর করেন মো. রাশেদ ও তাঁর সহযোগীরা। বিষয়টি তিনি রাঙ্গুনিয়া প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকে জানালে তাঁরা মামলার পরামর্শ দেন। পরে সেদিনই রাশেদকে প্রধান আসামি করে তাঁর সহযোগী আরও ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন জাহেদুল ইসলাম। বাকি আসামিরা হলেন—একই এলাকার বাসিন্দা রানা (৩০), সফিক (৩৪), দিদার (২৬), জাহেদুল (২৯) ও ফাহিম (২৩)। 

জাহেদুল ইসলাম বলেন, ‘মামলার দুই দিন পর থানা-পুলিশ শুধু ৩ নম্বর আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। শুনেছি, অন্য আসামিরা আদালত থেকে জামিন নিয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে পোমরা ইউনিয়নের সৌদিয়া প্রজেক্ট গেট এলাকায় আমাকে ও আমার বড়ভাইকে ফের মারধর করে রাশেদ ও তাঁর সহযোগীরা। পরে ঘটনাস্থলে সংবাদকর্মী জাহেদ হাসান তালুকদার আসলে তাঁরা পালিয়ে যায়।’ 

রাঙ্গুনিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খান নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আজকের ঘটনার বিষয়ে ভুক্তভোগী থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’