রাঙ্গামাটির কাপ্তাই জেলার অটল ছাপ্পান্ন কাপ্তাই জোন এর ভারপ্রাপ্ত জোন কমান্ডারের নির্দেশনায় রাজস্থলী সাব- জোন কমান্ডার এর তত্ত্বাবধানে রাজস্থলী ক্যাম্পে হেডম্যান ও কারবারী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল সাড়ে ৯ টায় রাজস্থলী সাব-জোন কমান্ডার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তিনি বলেন, অটল ছাপ্পান্ন ২৩ বেঙ্গল থেকে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে এই এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় সেনাবাহিনী নিরলশ ভাবে কাজ করছে। প্রথম থেকেই বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পার্বত্য এলাকায় অনেক ঝুঁকি নিয়ে সফলতার সাথে কাজ করছে। এখানে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সেনাবাহিনী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, বিগত দিন গুলোতে সশস্ত্র সন্ত্রাসী কর্তৃক অত্র পাড়া মহল্লায় সাধারণ মানুষের উপর জুলুম নির্যাতন ও চাঁদা নেওয়া বৃদ্ধি পাওয়ায়, কাপ্তাই জোনের উদ্যোগে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। স্থানীয় হেডম্যান ও কারবারিদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, আপনাদের সাহায্য নিয়ে আমরা একসাথে কাজ করতে চাই। দুর্গম এলাকার মানুষ যারা এখনো আধুনিকতার ছোয়া পায়নি তাদেরকে আমরা একবিংশ শতাব্দীতেই আধুনিকতার ছোয়া দিতে চাই। ভবিষৎ সকলের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।এলাকার শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সবাই কে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। কেন না পাহাড়ে সন্ত্রাসীরা মাথা উচু করে নিরীহ পাহাড়ীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে চাঁদা আদায় করে। তাদের প্রতিহত করে শান্তি ফিরিয়ে আনতে হবে। নইলে এলাকায় শান্তি ফিরে আসবে না।

সম্মেলনে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উবাচ মারমা, সাব-জোন জেসিও,রাজস্থলী সাব-জোন, ১ নং ঘিলাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবার্ট ত্রিপুরা, গাইন্দ্যা ইউপি চেয়ারম্যান পুচিংমং মারমা ও বিভিন্ন মৌজা থেকে আগত হেডম্যান ও কারবারী এছাড়াও গণমাধ্যম কর্মীগন উপস্থিত ছিলেন।