মো. ইদ্রিছ – রাঙ্গুনিয়া পদুয়ায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে মো. এনাম হোসেন (৩১) নামে এক দিনমজুরের মৃত্যু হয়েছে।
বুধবার (২০ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড দ্বারিকোপ মহিষের বাম এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
নিহত এনাম হোসেন ওই এলাকার আহমদ মিয়ার ছেলে।

ইউপি সদস্য হোসেনুজ্জামান বাচ্চু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাতে অজ্ঞাতপরিচয়ে বেশ কিছু দুর্বৃত্ত এনামের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা এনামকে দেশিয় অস্ত্র দিয়ে মারধর করলে পার্শ্ববর্তী বাড়িতে চলে গিয়ে খাটের নিচে লুকিয়ে পড়েন।

সেখানে গিয়ে সন্ত্রাসীরা তার মাথা ও ঘাড়ে দুটি গুলি করে চলে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় রাজারহাট পদুয়া ইউনিয়ন কমিনিউটি ক্লিনিকের চিকিৎসক ডাঃ আশীষের কাছে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় পাশের বাড়ির প্রত্যক্ষদর্শী ওসমান জানায়, হঠাৎ এনাম আমার বাড়িতে ডুকে যায়, সাথে সাথে কে বা কারা গুলি করে চলে যায়,আমি আমার স্ত্রী সন্তানসহ জান রক্ষার্থে আমার শাশুর বাড়িতে চলে যায়।

তার সাথে জামাল নামে এক ব্যক্তির বিরোধ ছিল বলে তার পরিবার জানায়। নিহত এনাম হোসেন একজন দিনমজুর। তার পরিবারে স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে যথাক্রমে – ঈশা মণি (৮) মো. ইমরান হোসেন (৪)।
গুলি করে হত্যার ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার) আফরোজ টুটুল।
তিনি বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারনে এ ঘঠনা ঘটেছে বলে ধারণা করছি, অতি শীঘ্রই জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন
সহকারী পুলিশ সুপার রাঙ্গুনিয়া সার্কেল শামীম আনোয়ার।
দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি ওবায়দুল ইসলাম জানান, আমরা এনাম হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যার খবর পেয়ে ডিউটি অফিসার সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে যায়, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।