রাঙ্গুনিয়ার প্রবীণ রাজনীতিবিদ,পদুয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি,মুক্তিযুদ্ধের অন‍্যতম সংগঠক মাহাবুব আলম চৌধুরীর ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ, সহযোগী সংগঠন,স্মৃতি সংসদ ও পরিবারের পক্ষ থেকে খতমে কোরআন,মিলাদ ও দোয়া মাহফিল,কবরে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

এ উপলক্ষে আজ শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকালে রাজারহাটে পদুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও মাহাবুব চেয়ারম্যান স্মৃতি সংসদের উদ‍্যোগে স্মরণ সভা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আ. লীগ সভাপতি উপাধ্যক্ষ দুলাল দাশের সভাপতিত্বে ও স্মৃতি সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো.সেলিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ‍্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর ছোট ভাই ও জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মৎস্য খামারি, সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব এরশাদ মাহমুদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউ.পি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর,ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.বদিউজ্জামান।

এসময় বক্তব‍্য রাখেন এমদাদ হোসেন চৌধুরী,নুরুল আবছার তালুকদার,মাস্টার মো.রফিক,মাস্টার ছাবের আহাম্মদ,জাহিদ হাছান তালুকদার,মাস্টার অঞ্জন দাশ,ডা.জসীম উদ্দিন,বিষু তালুকদার,মতিউর রহমান,নবী হোসেন সালাউদ্দিন,মেম্বার ফারুক তালুকদার,সত‍্যজিত দাশ,যুবলীগ সভাপতি মোহাম্মদ রাসেল,সাধারণ সম্পাদক সাঈয়েদুল আলম,স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি তারেক সোহেল,ছাত্রলীগ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন,সাধারণ সম্পাদক তারেক উদ্দিন রানা ও পরিবারের পক্ষে মরহুম নেতার সন্তান চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার প্রমূখ।

মিলাদ ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ইউনিয়ন আ:লীগের দপ্তর সম্পাদক মাওলানা নুরুল আজিম। সভায় প্রধান অতিথি এরশাদ মাহমুদ বলেন; মাহাবুব চেয়ারম্যান রাঙ্গুনিয়ায় ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে শুরু করে মহান মুক্তিযুদ্ধ,পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধু হত‍্যাকান্ড পরবর্তী দুঃসময়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে এগিয়ে নেয়া সহ সততা নীতি আদর্শে আমৃত‍্যু অবিচল ছিলেন। তার মতো জনবান্ধব নেতা বর্তমান সময়ে রাজনীতিতে বিরল।