নীতি নৈতিকতা বর্হিভূত, সমাজ বিরোধী কর্মকাণ্ড, অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো সহ অন্যায়ের বিরুদ্ধে আপোষহীন কন্ঠস্বর হিসেবে ইতোমধ্যেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ফলস্বরূপ নতুন প্রজন্মদের কাছে আপনি এখন অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত।

পিতার আদর্শে আদর্শিত হয়ে প্রিয় রাউজানকে নিয়ে আপনার একের পর এক সমাজহিতৈষী কর্মকান্ড সত্যিই প্রশংসনীয়। আপনি যখন রাউজানে বাল্যবিবাহ রোধ, বখাটে সন্তান কর্তৃক বৃদ্ধ বাবা-মা’দের সুরক্ষা ও দেখভাল করা সহ কতিপয় পুরুষ কর্তৃক গৃহবধূদের নি-র্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করার আলোকবর্তিকা হাতে নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন ঠিক তখনই আপনার রাউজানে আপনারই প্রতিবেশী রাঙ্গুনিয়া উপজেলাধীন পোমরা ইউনিয়নের সাপলেজা পাড়াস্থ আমাদের প্রিয় বোন জাহেদা আফরিন তাইরিন বিবাহের ১৯ দিনের মাথায় তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন কর্তৃক নি-র্মম-ভাবে হ-ত্যাকা-ন্ডের শিকার হয়।

এরই প্রেক্ষিতে রাঙ্গুনিয়ার তরুন সমাজের মধ্যে এখন মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সব ছাপিয়ে একটি সুষ্ঠ বিচার ও দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে বোন হারা ভাইগুলো এখন আপনার দিকে তাকিয়ে। আশা করি ত্বরিত ও যথাপোযুক্ত ব্যাবস্থা গ্রহণ করে আপনি ও আপনার সমাজহিতৈষীমূলক কর্মকান্ডকে ভালবাসা, রাঙ্গুনিয়ার হাজার হাজার তরুণদের আস্থা ও ভালবাসার স্বাক্ষর রাখবেন। আমরা আমাদের বোন হত্যার বিচার চাই।

বরাবর
মো: ইব্রাহিম
জাহেদা আরফিন তাইরিন এর ভাই