পুকুরে গোসল করতে নেমে দুষ্টুমি করছিল দুই ভাই সবুজ ও শাহীন। দুষ্টুমির এক পর্যায়ে ছোট ভাই সবুজকে তলিয়ে যেতে দেখে বাঁচাতে এগিয়ে আসে শাহীন। কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস, নিজেও গভীর পুকুরে তলিয়ে যায়। 

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২ টায় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা পরিষদের পুকুরে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহীন (১৭) উপজেলার ইছাখালী উত্তর ঘাটচেক ৫ নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মীরখীল এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। সে রাঙ্গুনিয়া স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুই ভাই এক সাথে পুকুরে গোসল করতে নামে। দুষ্টুমির একপর্যায়ে দুজন দুদিকে চলে যায়। ছোট ভাইকে তলিয়ে যেতে দেখে বড় ভাই এগিয়ে গেলে সেও পানিতে তলিয়ে যায়। 

ইছাখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জান্নাতুল আদন বলেন, হাসপাতালে আনার পূর্বেই ছেলেটির মৃত্যু হয়েছে। 

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সুমন বলেন, দুই ভাই একসাথে পুকুরে তলিয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পুকুরে নেমে ছোট ভাইকে দ্রুত উদ্ধার করতে পারলেও বড় ভাইকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পরে পানির তলদেশ থেকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।