নিউজ ডেস্কঃ- চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া নিজ বাড়ি থেকে চট্টগ্রাম শহর যাওয়ার পথে অপহরণের শিকার প্রবাসী মোহাম্মদ হারুনকে (৪৫) ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই রাঙ্গামাটি থেকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নের পূর্ব সরফভাটা ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সিকদার পাড়া গ্রামের ডাক্তার আমিন শরীফ সিকদারে ছেলে।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় রাঙ্গামাটি কোতোয়ালি থানা পুলিশের সহযোগিতায় অপহৃত হারুন সিকদারকে রাঙ্গামাটি জেলা শহরের কাঁঠালতলি এলাকা থেকে উদ্ধারের পর তাকে রাঙ্গুনিয়ায় নিয়ে আসেন চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাঙ্গুনিয়া-রাউজান সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম ও দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি ওবায়দুল ইসলামসহ দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশ।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ৮ টায় চট্টগ্রাম শহরে যাওয়ার উদ্দেশ্যে নিজ বাড়ি থেকে বের হয় হারুন। এরপর থেকে ২/৩ ঘন্টা তার সাথে পরিবারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। খোঁজ না পেয়ে রাতেই দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। কিছুক্ষণ পর রাত ১১ টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভয়েস ম্যাসেজ আসে। ভয়েসে বলা হয়, “৫০ হাজার টাকা না পাঠালে আমাকে তারা মেরে ফেলবে।” পরে অপহরণকারীদের সাথে যোগাযোগ করে বুধবার সকালে মোবাইল ব্যাংকিং নগদের মাধ্যমে মুক্তিপণ ৫০ হাজার টাকা পাঠানো হয়।

রাঙ্গামাটি কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.কবির হোসেন বলেন, রাঙ্গুনিয়া সার্কেল ও দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানা উদ্ধার অভিযানে আসলে আমাদের সহযোগিতায় অপহৃত প্রবাসী হারুন সিকদারকে উদ্ধার করা হয়। পরে দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়।
দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল ইসলাম বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার অপহৃত হারুনের খোঁজ পেয়ে রাঙ্গুনিয়া সার্কেল স্যারসহ রাঙামাটির উদ্যেশ্যে বের হই। পুলিশের তৎপরতা দেখে অপহরণকারীরা প্রবাসী হারুন সিকদারকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে রাঙ্গামাটির কোতোয়ালি থানার সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানায় নিয়ে আসি এবং তার পরিবারকে হস্তান্তর করি।