নিউজ ডেস্ক:স্বাধীনতার স্থপতি জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের সদস্যদের নৃশংস হত্যাকান্ডের ৪৮তম বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মিলাদ মাহফিল ও কাঙ্গালি ভোজের আয়োজন করেছে চান্দগাঁও ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ নাছির উদ্দীন।
এতে সার্বিক সহায়তায় ছিলেন চান্দগাঁও থানা আওয়ামীলীগ সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোঃ কামরুল হাসান জনী।

এসময় সকলের উদ্দেশ্যে নাছির উদ্দীন বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট সপবিারে হত্যা করা হয় বাংলাদেশের স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। এই হত্যাকাণ্ডের বিচার আমাদের প্রাপ্য ছিল কিন্তু ১৯৭৫ সালের ২৬শে সেপ্টেম্বর ক্যুখ্যাত ইনডেমনিটি (দায়মুক্তি) অধ্যাদেশ জারি করে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের হাত ধরে ক্ষমতায় আসা খন্দকার মোশতাক। এতে বলা হয়, ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্টের হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত বা পরিকল্পনার সাথে জড়িত কারো বিরুদ্ধে কোন আদালতে মামলা করা যাবেনা। এমনকি সুপ্রীম কোর্ট বা কোর্ট মার্শালেও তাদের বিচার করা যাবেনা।